শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০১:৫০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
দৈনিক হাওয়া ২৩ অক্টোবর ২০২০ ইং। রুহুল আমিন গাজীকে গ্রেপ্তারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে কুষ্টিয়া জেলা বিএনপি ঝাউদিয়া ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে তদন্ত শুরু ভেড়ামারায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে সবজি বীজ বিতরণ কুষ্টিয়ায় ২৭ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক ২ ভেড়ামারায় নিরাময় ক্লিনিকে তড়িঘড়ি করে করা ভুল সিজারে নবজাতকের মৃত্যু কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় সরকারি জমিতে অবৈধভাবে দোকান ঘর নির্মাণ, কাজ বন্ধে ইউএনও’র নির্দেশ নিঃসঙ্গতা কাটাতে শতবর্ষী বৃদ্ধ বিয়ে করলেন ৮০ বছরের বৃদ্ধাকে ভেড়ামারায় রাতের অন্ধকারে পুজা মন্ডব ভাংচুর; আটক-১ কুষ্টিয়ায় জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালন

শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্য : ইবির ৩ শিক্ষককে দুদকের তলব

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৫৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০১:৫১ অপরাহ্ন

শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষককে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অভিযোগের ভিত্তিতে সুষ্ঠু অনুসন্ধানের জন্য বক্তব্য প্রদান করতে তাদেরকে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে। দুদকের উপপরিচালক ও অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা আব্দুল মাজেদ স্বাক্ষর করা প্রেরিত এক চিঠি থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। নিয়োগ বাণিজ্যে অভিযুক্ত তিন শিক্ষক হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রুহুল আমীন ও ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এস এম আব্দুর রহিম। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ চিঠি প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘এমন একটি চিঠি দপ্তরে এসেছে। যে সকল শিক্ষককে হাজির হতে বলা হয়েছে ইতিমধ্যে আমরা তাদের বরাবর চিঠি পাঠিয়ে দিয়েছি। চিঠিতে বলা হয়, উল্লিখিত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের সুষ্ঠু অনুসন্ধানের স্বার্থে বক্তব্য গ্রহণ ও শ্রবণ করা একান্ত প্রয়োজন। অভিযোগের বিষয়ে অনুসন্ধানপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আব্দুল মাজেদকে অনুসন্ধানী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। এ ছাড়া অনুসন্ধানের জন্য নিয়োগ প্রার্থী আরিফ হাসানসহ নিয়োগের সাথে সংশ্লিষ্ট অন্যদেরকেউ আলাদা চিঠিতে তলব করা হয়েছে। এ বিষয়ে সাবেক প্রক্টর ড. মাহবুবর রহমানের কাছে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখনো চিঠি পাইনি। সরকারের অনেক অর্গানের সাথে সাক্ষাতের অভিজ্ঞতা আছে। দুদক এর কাছে আমার সততার স্বীকৃতি পেলে সেটা হবে ষড়যন্ত্রকারীদের মুখে ছাই। সুতরাং দুদক ডাকলে আমি খুশিই হবো।’ প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৯ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগে শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যের একটি অডিও ফাঁস হয়। এতে নিয়োগের ব্যাপারে একজন প্রার্থীর সঙ্গে বিভাগের শিক্ষক সহযোগী অধ্যাপক রুহুল আমিন ও ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুর রহিমের কথোপকথোন পাওয়া যায়। অডিও ক্লিপ অনুসারে, শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যের পেছনে একটি সিন্ডিকেট কাজ করেছে। অডিও ক্লিপে এসেছে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের শিক্ষক ও সাবেক প্রক্টর ড. মাহবুবর রহমানের নামও। সে সময় তাকে নিয়োগ বাণিজ্যের মূল হোতা বলে দাবি করে শাখা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
এক ক্লিকে বিভাগের খবর