শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৪১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
আলেম-উলামারা এদেশে ঘর জামাই নয় যে কথা বলতে পারবে না;মুফতি আব্দুল হামিদ  কুষ্টিয়ায় এবার দুইশো বিঘা জমিতে চাষ হয়েছে গ্যান্ডারী আখ সুন্দর জীবন গঠন করো দৌলতপুরে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি পালন কুষ্টিয়ায় বাংলাদেশ প্রাক্তন সৈনিক সংস্থার বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত দৌলতপুরে চেয়ারম্যান শাহ আলমগীরের বিরুদ্ধে ভিজিডি কার্ডের চাল না পাওয়ার অভিযোগ ৫ দাবিতে কুষ্টিয়ায় চিনিকল শ্রমিকদের মানববন্ধন কুমারখালীর সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম আবিস্কার করলেন নতুন জাতের ধান কুষ্টিয়া খোকসায় অবৈধ ভাবে রাতভোর বালি উত্তোলন ‘১৫ দিনের সেই শিশুকে হত্যার পর সেপটিক ট্যাংকে ফেলে রাখে বাবা-মা’

মিরপুরে যৌতুকের জন্য গৃহবধূ লিমা কে বর্বরোচিত নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ২:২৬ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ার মিরপুরে যৌতুকের টাকার জন্য গৃহবধূ ও দুই জমজ পুত্র সন্তানের জননী লিমা খাতুন কে শারিরীক ভাবে বর্বরোচিত নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে।

গত বৃহস্পতিবার(১৭-৯-২০) সকালে গৃহবধু লিমাকে স্বামী সাকিল, দেবর সাজিম, শ্বশুর হাসেম শ্বাশুড়ী শাহনাজ মিলে বেদম প্রহার করে গুরুত্বর জখম করে আহত করেছে । এখন ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।আঘাতের যন্ত্রণায় ছটফট করছে লিমা খাতুন।

ঘটনাটি ঘটেছে লিমা খাতুনের শ্বশুর বাড়ী কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার চিথলিয়া গ্রামে। জানাযায়, আড়াই বছর হলো সাকিল লিমার বিয়ের বয়স। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে লিমা খাতুনকে তার স্বামী সাকিল সহ দেবর সাজিম, শ্বশুর হাসেম ও শ্বাশুড়ী মিলে দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন করে আসছে।

লিমা খাতুনের বাবা হযরত আলী মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে ইতিমধ্যে এক লক্ষ ৯২ হাজার টাকা দিয়ে একটি মটরসাইকেল কিনে দেয়। কিন্তু এর পর আবারও ৮০হাজার টাকা দাবি করে। টাকা না পেয়ে পরে আবারও নির্যাতন শুরু করে। গতকাল বৃহস্পতিবার স্বামী, দেবর, শ্বশুর, শ্বাশুড়ি মিলে বেদম প্রহার করে। পরে লিমা’র ভাই তার বোন লিমাকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। লিমার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের ফোলা জখমের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান, লিমার মা রাবেয়া খাতুন। লিমা খাতুন মিরপুরের ধুবইল ইউনিয়ন’র লক্ষ্মীধরদীয়ার গ্রামের হযরত আলীর মেয়ে।

লিমা’র মা রাবেয়া খাতুন জানান, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে মেয়ে লিমা খাতুনকে তার পাষন্ড স্বামী সাকিল ও তার ভাই সাজিম সহ শ্বশুর, শ্বাশুরী শারীরিক ভাবে নির্যাতন করার কারনে এবং মেয়ের সুখের কথা ভেবে ১ লক্ষ ৯২হাজার টাকা দিয়ে মটরসাইকেল কিনে দিতে বাধ্য হয়েছি। এরপরও টাকা দাবী করছে।

এরপরে বিভিন্ন সময় নানা কৌশলে দফাই দফাইটাকা নেয়ার জন্য মেয়েকে চাপ প্রয়োগ করে জামাই সাকিলসহ শ্বশুর বাড়ীর লোকজন। আমরা গরিব মানুষ টাকা দিবো কি করে। আমার মেয়ে লিমার জমজ পুত্র সন্তানের মা হওয়ার কারনে আমার বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে ফেলে রেখে গিয়েছিল। এখন নিয়ে গিয়ে টাকা দাবি করছে। আমার লিমাকে মারধর করে দেখেন কি করেছে।

গৃহবধূ লিমা খাতুন জানান, বেশ কয়েকদিন ধরে আবারও ৮০ হাজার টাকা দাবী করে স্বামী তুহিন ও দেবর, শ্বশুর, শ্বাশুড়ী আমাকে মারপিট করতে থাকে। আমার বাবা গরিব তাই এই মূহুর্তে টাকা দিতে দিতে পারবে না বললে গতকাল আমাকে অমানুষিক ভাবে বেধরক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ফেলে রাখে।

সংবাদ পেয়ে আমার ভাই ও স্বজনরা উপস্থিত হয়ে আমাকে উদ্ধার করে। যৌতুকের দাবিতে নানা ভাবে নির্যাতন করা পাষন্ডস্বামী ও শ্বশুর বাড়ীর লোকেদের উপযুক্ত বিচারের দাবি করেন গৃহবধূ লিমা খাতুন। এবিষয়ে মিরপুর থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন তার ভাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect. Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.