শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৩৫ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়া চরথানাপাড়ায় শালিস বৈঠকে হামলা : আহত-৪ থানায় মামলা দায়ের : আটক-২ : বাদীকে হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১০৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ৩১ আগস্ট, ২০২০, ১১:০৮ অপরাহ্ন

জমি সংক্রান্ত বিরোধের ঘটনায়

কুষ্টিয়া শহরের চরথানা পাড়া এলাকায় একটি জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বাদী-বিবাদী পক্ষকে নিয়ে এলাকার জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা কর্মিসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এক শালিস বৈঠকে বসেছেন এমন সময়ে বিবাদী পক্ষের রতন শেখ’র নেতৃত্বে ৭ -৮ জনের একটি হামলাকারী দল ওই বৈঠকে হামলা চালিয়ে বাদীসহ কমপক্ষে ৪ জনকে আহত করার ঘটনা ঘটেছে। গত ২৯ আগষ্ট শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বাদী রবিউল ইসলাম মুন্সি বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনার সাথে জড়িত ধারালো অস্ত্রসহ দুই জনকে আটক করেছে বলে জানা গেছে। এদিকে মামলার পর থেকে বাদীকে আসামী পক্ষ থেকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি প্রদর্শন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। মামলার সুত্রে জানা গেছে, কুষ্টিয়া শহরস্থ চরথানাপাড়া এলাকার রবিউল ইসলাম মুন্সী (৪৮) ও থানাপাড়ার এলাকার মৃত বিদু শেখের ছেলে রতন শেখ (৪৮) এর মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। এ বিষয়ে গত ২৯ আগষ্ট বিকেল সাড়ে ৫টার সময় চরথানাপাড়া পুরাতন বাঁধের উপর শহিদের চায়ের দোকানের সামনে সামাজিক আপোষ-মিমাংসার বৈঠক বসানো হয়। এতে ওই এলাকার কাউন্সিলর খন্দকার মাজেদুল হক ধিমান, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ আমান উল্লাহ নান্টু, সভপতি মকলেছুর রহমান বাবুসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উভয় পক্ষের শুনানী চলছিল ঠিক তখন বিবাদী পক্ষের মোঃ রতন শেখ (৪৮) পিতা মৃত বিদু শেখ, জুয়েল শেখ, শান্ত খাতুন, জয়া খাতুনসহ ৪/৫ জনের একটি গ্রুপ ধারালো অস্ত্র নিয়ে বৈঠকস্থলেই রবিউল ইসলাম মুন্সীর উপর হামলা চালায়। এ সময় প্রতিবেশীরা ঠেকাতে আসলে তাদের উপরও হামলা চালায় রতন শেখ, তার ছেলে জুয়েল শেখ (২৭), রতনের স্ত্রী শান্ত খাতুন (৪২) মেয়ে জয়া খাতুন (২২)। বেপরোয়া হামলায় খোকন, রবিউল, মিজানুরসহ ৪ জন গুরুতর আহত হয়। পরে আহতদের স্থানীয়রা কুষ্টিয়া ২শ ৫০ শর্য্যার হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এ ব্যাপারে গত ৩০ আগষ্ট রবিউল ইসলাম মুন্সী বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় হামলাকারীগণ সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩-৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং-৩৮। আসামীদের মধ্যে রতন ও তার ছেলে জুয়েল কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। বাকী আসামীদের ধরতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। এদিকে রতনের স্ত্রী শান্ত ও মেয়ে জয়া’র বিরুদ্ধে এলাকার মধ্যে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করার অভিযোগ রয়েছে। বর্তমানেও তারা বিভিন্ন ভাবে এলাকাতে বিশৃঙ্খলা তৈরীর চেষ্টা করছে। এবং মামলার বাদীকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। ভুক্তভোগী ও এলাকাবাসী বলছে, তারা দুজন বর্তমানে এলাকায় তাদের নিজ বাড়ীতেই অবস্থান করছে। বাড়ীর বাইরে থেকে তালা দিয়ে পেছন দিয়ে বাড়ীতে প্রবেশ করছে। জরুরী ভিত্তিতে বাকী আসামীদের ধরতে পুলিশকে আরো কঠোর হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে এলাকাবাসী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
সর্বমোট
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect. Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.