শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:০১ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ায় খুন করে ফেলে যাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে আসামী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ১১৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে খুন করে ফেলে রেখে যাবার ৭দিনের মাথায় খুনের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। এ বিষয়ে রোববার কুষ্টিয়া পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করা হয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে অতিরিক্তি পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ৫ নভেম্বর কুষ্টিয়া -রাজবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের করাতকান্দি বিলের পাশে অজ্ঞাতনামা নারীর লাশ উদ্ধার করে কুমারখালী থানা পুলিশ। এবং তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ৬ ঘন্টার মধ্যে লাশের পরিচয় বের করা হয়। ৬ নভেম্বর খুন হওয়া রাধা রানী রায়ের (৪৩) ভাই সুভাস চন্দ্র রায় কুমারখালী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মজিবুর রহমান মামলার তদন্তকারী অফিসারকে সাথে নিয়ে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার, সিসি টিভি ফুটেজ ও বিভিন্ন কৌশলে হত্যার সাথে জড়িতদের সনাক্ত করেন। ১৩ নভেম্বর বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার চান মোল্লার ছেলে হানিফ মোল্লাকে (৩০) এ্যামবুলেন্স সহ বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল এলাকা থেকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তিতে জানা যায় রাধা রানী ঢাকা নারায়ণগঞ্জ কাজের সুবাদে বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার শোলক ইউনিয়নের গৌরনদী জেলার বহরকাঠি গ্রামের আব্দুর রশিদের সাথে ঢাকায় তার পরিচয় হয়। তাদের বিবাহ হলে রাধা রানী দ্বিতীয় স্বামী বাড়িতে থাকতেন। তবে তার পরিবারের কেউ বিষয়টি জানতো না। পরিবারের কলহের জের ধরে ৪ নভেম্বর অ্যাম্বুলেন্সে বরিশাল থেকে নীলফামারী যাবার পথে কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা থেকে অক্সিজেন মাস্ক খুলে কম্বল চাপা দিয়ে হত্যা করে মরদেহ কুমারখালী উপজেলায় পথের পাশে ফেলে রেখে যায়। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ১৪ নভেম্বর গাজীপুরের কালিয়াকৈর থানার লামা আশুলিয়া থেকে আব্দুর রশিদ (৩৫) ও ১৫ নভেম্বর বরিশাল জেলার গৌরনদী থানার বাটাজোর থেকে মোঃ আলামিন খলিফাকে (৪০) পুলিশের পৃথক দুটি দল গ্রেফতার করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
সর্বমোট
এক ক্লিকে বিভাগের খবর