শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ায় সবুজ লাউয়ে কৃষকের মুখে মিষ্টি হাসি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি / ৫৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ২:৫২ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ায় গ্রীষ্মকালীন সবজি লাউ চাষে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছেন কৃষকরা। চলতি গ্রীষ্ম-বর্ষা মৌসুমে কুষ্টিয়ায় ছয় হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন ধরণের সবজি চাষ হয়েছে। এরমধ্যে ২০০ হেক্টর জমিতে লাউ চাষ করেছেন কৃষকরা। আর এ সবজি চাষ করে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছেন তারা। করোনাকালে লাউ চাষ করে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি স্থানীয় বাজারে সবজির চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন সবজি বাজারে সরবরাহ করছেন তারা।

কুষ্টিয়ায় লাউ ক্ষেতে ঝুলে থাকা লাউ-এর সারি দেখতে যেমন মনোরম তেমনি আর্থিক যোগানের অন্যতম সহায়ক। লাউ গ্রীষ্ম-বর্ষা মৌসুমের অন্যতম সবজি এবং বাজারে এর চাহিদাও বেশি। অতিবৃষ্টির পরও লাউ সবজি চাষ করে বেশ লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা। লাউ চাষে বিঘা প্রতি কৃষকদের খরচ হয়েছে মাত্র ১২-১৫ হাজার টাকা। আর বিক্রয় করেছেন লক্ষাধিক টাকারও বেশি। যা স্বল্প সময়ে এবং বর্ষা মৌসুমে কৃষকদের আর্থিক চাহিদা মিটাচ্ছে। আর এমনটাই জানিয়েছে দৌলপতপুর উপজেলার কল্যাপুর গ্রামের কৃষক আরিফ হোসেনসহ অনেকে। করোনাকালীন এই দুঃসময়ে লাউ চাষ লাভবান হওয়ায় কৃষক-কৃষানীদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে।

আবার কৃষকদের কাছ থেকে প্রতি পিস লাউ ২৫-২৮ টাকা পাইকারি দরে ক্রয় করে ভোক্তারদের কাছে তা ৩৫ টাকা বা তারও বেশি দরে বিক্রয় করছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা। এতে তাদের সংসারে স্বচ্ছলতাও ফিরেছে।

গ্রীষ্ম ও বর্ষাকালে লাউ চাষে ফলন ভাল হওয়ায় লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা। আর সবজি চাষে কৃষকদের উৎসাহ দেয়ার পাশাপাশি ভাল ফলনের জন্য কৃষি বিভাগ বীজ সরবরাহ, তদারকি ও পরামর্শ দিয়ে থাকেন কৃষকদের বলে জানিয়েছেন দৌলতপুর কৃষি কর্মকর্তা এ কে এম কামরুজ্জামান।

কৃষকদের বেশি বেশি সবজি চাষে উৎসাহ ও প্রণোদনা দিলে একদিকে গ্রীষ্ম-বর্ষা মৌসুমসহ সব মৌসুমের সবজির চাহিদা মিটবে অপরদিকে অর্থকরী ফসল সবজি চাষ করে তারা আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হবেন। এমনটাই মনে সংশ্লিষ্টরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
সর্বমোট
এক ক্লিকে বিভাগের খবর